ঢাকা, রবিবার , ১৯ আগস্ট ২০১৮, | ৪ ভাদ্র ১৪২৫ | ৭ জিলহজ্জ ১৪৩৯

আহ! হিরোশিমা!

শরীর জুড়ে আগুন। শহর জুড়ে আগুন। আগুনে পুড়ে গেছে গর্ভস্থ ভ্রুণ। নারকীয়তার নির্দেশদাতা ট্রুম্যান। সভ্যতার কলঙ্ক এনালা গে’র লিটলম্যান। অমানবিক নিষ্ঠুরতায় বিপন্ন মানবতা, বিবর্ণ শ্যামলিমা। আহ! হিরোশিমা।

সেই ৬ আগস্ট আজ। ১৯৪৫ সাল। স্থানীয় সময় সকাল আটটা ১৫ মিনিট। আগেই নির্দেশনা দিয়ে রেখেছিলেন তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট হ্যারি ট্রুম্যান। জাপানের হিরোশিমা শহরে পৃথিবীর ইতিহাসে প্রথম পারমাণবিক বোমা হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন বি-টুয়েন্টি নাইন বোমারু বিমান এনোলা গে থেকে হিরোশিমায় ফেলা হয় আণবিক বোমা ‘লিটল বয়’। ওই পারমাণবিক বোমার বিস্ফোরণে তাৎক্ষণিকভাবে প্রায় দেড় লাখ মানুষ নিহত হয়। ধ্বংসযজ্ঞে পরিণত হয় একটি নগরী। পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় বছর শেষে আরও ৬০ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়।মানব সভ্যতার ইতিহাসে কলঙ্কজনক একটি দিন। এই দিনেই বিশ্ব দেখে এক ভয়াবহ ধ্বংসলীলা।

বিষাদময় এই ঘটনার ৭৩ বছর পূর্তি উপলক্ষে সোমবার বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে প্রদর্শিত হবে ‘ত্রিংশ শতাব্দী’। ‘আর নয় হিরোশিমা, আর নয় নাগাসাকি, আর নয় যুদ্ধ’ এ স্লোগান নিয়ে নাট্যসংগঠন স্বপ্নদলের আয়োজনে এটি প্রদর্শিত হবে।

হিরোশিমার ঘটনার তিন দিন পর ৯ আগস্ট নাগাসাকি শহরে ফ্যাটম্যান নামে আরেকটি পারমাণবিক বোমা নিক্ষেপ করা হয়। এতে প্রায় ৭৪ হাজার মানুষ মারা যায়।

তবে জাপানের আসাহি শিমবুনের এক হিসাবে বলা হয়েছে, বোমার প্রতিক্রিয়ায় সৃষ্ট রোগের কারণে দুই শহরে চার লাখের মতো মানুষ মারা যান। যাদের অধিকাংশই ছিলেন বেসামরিক নাগরিক।


%d bloggers like this: