ঢাকা, সোমবার , ২০ আগস্ট ২০১৮, | ৫ ভাদ্র ১৪২৫ | ৮ জিলহজ্জ ১৪৩৯

জঙ্গিরা পাখিপ্রেমী পরিচয়ে বাড়ি ভাড়া নিয়েছিল

 

রাজশাহীর চাঁপাইনবাবগঞ্জে ‘জঙ্গি আস্তানা’ সন্দেহে যে বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে গবাদিপশু লালনপালনের কাজেই এই বাড়িটি ব্যবহার করা হতো। জঙ্গিরা পাখিপ্রেমী পরিচয়ে এই বাড়ি ভাড়া নিয়েছিল। লোকালয় থেকে দূরে চরের মাঝখানে এই বাড়িতে থেকে বিভিন্ন ধরনের পাখি দেখবে বলে জানিয়েছিল জঙ্গিরা। র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান এই তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘এর আগে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও আশপাশের এলাকায় জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালিয়ে যাদের পাওয়া গেছে তাদের কাছ থেকেই চল আলাতুলীর এই আস্তানার তথ্য পাই আমরা। পরে এই এলাকায় নজর রাখা হয়। স্থানীয়দের কাছ থেকেও কিছু তথ্য পাওয়া যায়। আমাদের ধারণা রাজশাহীর কোনও এলাকায় নাশকতা চালানোর জন্য এখান থেকে প্রশিক্ষণ ও সংগঠিত হওয়ার কাজ করছিল জঙ্গিরা।’ জঙ্গিদের গায়ে লাগানো ভেস্ট থেকেই তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে জানান তিনি।
এর আগে মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) ভোররাতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার চর আলাতুলীর মধ্যচরে ওই বাড়িতে অভিযান চালায়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে জঙ্গিরা হামলা চালায়। আত্মসমর্পণের আহ্বান জানানো হলেও তারা তাতে সাড়া দেয়নি। র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। পরে আস্তানার ভেতরে বিস্ফোরণে তিন জঙ্গি নিহত হয়। নিহতদের পরিচয় জানা যায়নি।

উল্লেখ্য চর আলাতুলী চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার অন্তর্ভুক্ত একটি চরাঞ্চল। রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলা সদর থেকে এটি দুই কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। পদ্মা নদী পার হয়ে সেখানে যেতে হয়। এলাকাটি ভারতীয় সীমান্তঘেঁষা।


%d bloggers like this: