ঢাকা, মঙ্গলবার , ১৬ জুলাই ২০১৯, | ১ শ্রাবণ ১৪২৬ | ১২ জিলক্বদ ১৪৪০

অবশেষে বৃষ্টি এনে দিল জনজীবনে স্বস্তি

প্রচণ্ড দাবদাহে পুড়ছিল দেশ। আশ্বিনেও ছিল চৈত্র্রের দাবদাহ। নগর জীবন হয়ে উঠেছিল বিপর্যস্ত। অপেক্ষা ছিল স্বস্তির বৃষ্টির। অবশেষে ঢাকা ও আশপাশের কয়েকটি এলাকায় বৃষ্টির দেখা মিলেছে। বুধবার(১৯ সেপ্টেম্বর) রাত দুইটার দিকে শুরু হয় মুষলধারে বৃষ্টি। জনজীবনে মধ্যরাতে আসে স্বস্তি। অবস্য, আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বৃষ্টির ইঙ্গিত ছিল।

ভাদ্র আশ্বিনে তালপাকা গরম পড়বে এটাই স্বাভাবিক। তবে গত কয়েকদিনে অস্বাভাবিক গরম অনুভূত হচ্ছে সারাদেশে। দিনে তো বটেই, রাতেও কমছে না ভ্যাপসা গরম। বাতাসে আর্দ্রতার হার বেশি থাকায় গরমে অসহনীয় হয়ে উঠেছিল জনজীবন। বিশেষ করে সাধারণ শ্রমজীবী মানুষ নাকাল দৈনন্দিন কাজ করতে গিয়ে।

সাধারণ শ্রমিকরা বলেন, অতিরিক্ত গরম, মিস্ত্রি কাজ করতেছি, পুরো শরীরে ঘাম থাকে। দুই-তিন ধরে প্রচণ্ড গরম পড়তেছে। ফ্যানের বাতাসেও কিছুই হচ্ছে না। বৃষ্টি নেই, তাই এমন অস্বাভাবিক গরম, বলছে আবহাওয়া অফিস। বৃহস্পতিবার থেকে ধীরে ধীরে গরম কমে আসার পূর্বাভাস জানিয়েছিল তারা।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো.আবদুর রহমান বলেন, লুঘুচাপের প্রভাবে সাধারণত বৃষ্টিপাতের পরিমাণটা কমে গেছে। বাংলাদেশের ওপর যে মৌসুমি বায়ু থাকার কথা ছিল সেটা দুর্বল হয়ে গেছে। এর ফলে সারাদেশে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ কমে গেছে। তবে বৃহস্পতিবার বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

হলোও তাই। নামল বৃষ্টি। চট্টগ্রাম, সিলেট ও বরিশালসহ দেশের কোনো কোনো এলাকায় বৃষ্টি হয়েছে।

আজ ২৪ প্রতিবেদক, ঢাকা


%d bloggers like this: