ঢাকা, রবিবার , ২৬ মে ২০১৯, | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ | ২০ রমযান ১৪৪০

আইয়ুব বাচ্চুকে নিয়ে ফেসবুকে শােকাতুর ক্রিকেটাররা

আইয়ুব বাচ্চুকে

‘মাধবী’ অথবা ‘কষ্ট’ কিংবা ‘সেই তুমি কেন এত অচেনা হলে’ কোন প্রজন্মকে কাঁপায়নি। সেই আইয়ুব বাচ্চুকে নিয়ে
ফেসবুকে শােকাতুর মন্তব্য করেছেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা।

সফরকারী জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে খেলার প্রস্তুতিতে নিত মাঠের অনুশীলনে ছিল বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। রক লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চুর আকস্মিক বিদায়ে শোকের ছায়া নেমেছ ক্রিকেট অঙ্গনেও। সামাজিক মাধ্যমে তারা তাদের শোকের বহিঃপ্রকাশ ঘটাচ্ছন তারা।

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমানের ব্যাটিং মেরুদন্ড মুশফিকুর রহিম, পেসার রুবেল ফেসবুকে লিখেছেন আইয়ুব বাচ্চুকে নিয়ে। মুশফিকুর রহিম লিখেছনে, দিনটার শুরু হলো ভয়ংকর দুঃখজনক সংবাদে। ইন্নালিল্লাহি…রাজিউন। আল্লাহ তার বিদেহী আত্মাকে শান্তিতে রাখুন।’ এদিকে পেসার রুবেল হোসেন লিখেছেন, ইন্না ইলাহি ওয়া ইন্না ইলাহির রাজিউন।
সত্যি মানতে পারছি না আমি ছোটবেলা থেকেই জেমস ভাই বাচ্চু ভাই এদের গান শুনি. আমি বাচ্চু ভাইয়ের বিশাল বড় একজন ফ্যান সেদিনও টিভিতে তার কনসার্ট দেখছিলাম. আল্লাহ এটা কি হয়ে গেল আসলে সবাইকে চলে যেতে হবে একদিন এটাই বাস্তবতা তার জন্য সবাই দোয়া করবেন..
আল্লাহ যেন প্রিয় শিল্পী কে বেহেশত নসীব করেন আমিন ।’


বৃহস্পতিবার সকালে নিজ বাসভবনে হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত ‘সেই তুমি’ বা ‘আম্মাজান’ খ্যাত গায়ক আইয়ুব বাচ্চুকে স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে আসলে সকাল ৯.৫৫ তে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
স্কয়ার হাসপাতালের মুখপাত্র, ডাক্তার মো, নাজিম উদ্দিন জানান, আইয়ুব বাচ্চুকে অসুস্থ অবস্থায় তার ড্রাইভার সকার ৯টটা ৪০ মিনিটে স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তখনই আমরা ধারনা করেছিলাম যে তিনি হয়তো মারা গেছেন। কেননা তখনই তার মুখ দিয়ে লাল/ফেনা বের হচ্ছিলো। তবুও আমাদের ডাক্তারদের একটি বিশেষজ্ঞ দল তার দেখাশোনা করে এবং সকাল ৯টটা ৫৫ মিনিটে ডাক্তারেরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে হার্টের প্রবলেমে ভুগছিলেন।এর আগে ২০০৯ সালে তিনি হার্টে রিং পরিয়েছিলেন।


%d bloggers like this: