ঢাকা, সোমবার , ২২ অক্টোবর ২০১৮, | ৭ কার্তিক ১৪২৫ | ১২ সফর ১৪৪০

আট মাসে ভোটার বেড়েছে প্রায় পঞ্চাশ হাজার

আট মাসে ভোটার

জাতীয় নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত চূড়ান্ত ভোটার তালিকায় আট মাসে ভোটার বেড়েছে প্রায় ৫০ হাজার। এদিকে চূড়ান্ত ভোটার তালিকায় নারী ও পুরুষ ভোটারের সংখ্যা প্রায় সমানে সমান দাড়িয়েছে।তফসিল ঘোষণার আগ পর্যন্ত ভোটার তালিকায় সংযুক্ত হওয়ার সুযোগ এখনও রয়েছে।

নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী ৩১ জানুয়ারি হালনাগাদকৃত ভোটারের থেকে ৩১ সেপ্টেম্বর শেষে ভোটার বেড়েছে ৪৮ হাজার ৯৯টি। এই অতিরিক্ত ভোটাররা গত আট মাসে নতুন ভোটার হিসেবে তালিকায় যুক্ত হয়েছেন। সব মিলে ভোটার দাঁড়িয়েছে ১০ কোটি ৪১ লাখ ৯০ হাজার ৪৮০। এই সংখ্যা এ বছর ইসির তথ্য অনুযায়ী মোট ভোটারের মধ্যে পুরুষ ৫ কোটি ২৫ লাখ ৪৭ হাজার ৩২৯ জন এবং ৫ কোটি ১৬ লাখ ৪৩ হাজার ১৫১জন। কমিশন থেকে জানানো হয়েছে, তফসিল ঘোষণার আগ পর্যন্ত আইন অনুযায়ী ভোটার হিসেবে অন্তর্ভুক্তি ও স্থানান্তরের সুযোগ রয়েছে সেই হিসেবে এই সংখ্যায় কিছুটা পরিবর্তন আসতে পারে।
এদিকে আসনভিত্তিক ভোটার তালিকা সিডি আকারে প্রকাশ করে তা মাঠ প্রশাসনে পাঠানো হয়েছে। ইসি-সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। এছাড়া জাতীয় নির্বাচনের করণীয়গুলোর মধ্যে সীমানা পুনর্নির্ধারণ, ভোটকেন্দ্র চূড়ান্তকরণ, প্রয়োজনীয় সামগ্রী কেনাসহ বেশ কিছু কার্যক্রম ইতোমধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে।

আসন ভিত্তিক ভোটার তালিকা পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, সব থেকে বেশি ভোটার রয়েছে ঢাকা-১৯ আসনে। এই আসনের ভোটার ৭ লাখ ৪৭ হাজার ৩০১ জন। অন্যদিকে সবচেয়ে কম ভোটারের আসন হচ্ছে যশোর-৬ (কেশবপুর)। এই আসনে ভোটার এক লাখ ৭৮ হাজার ৭৮৫ জন। সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন আসনের ভোটের ব্যবধানই হচ্ছে ৫ লাখ ৬৮ হাজার ৫১৬ ভোট। যা আসনভিত্তিক গড় ভোটারের থেকে অনেক বেশি। আসন ভিত্তিক গড় ভোটার সাড়ে তিন লাখের থেকে কিছুটা কম।


%d bloggers like this: