ঢাকা, সোমবার , ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ | ১৩ মুহাররম ১৪৪০

এবার সরকারি ডাকে এলো আড়াই কোটি  টাকার ‘খাথ’

দেশে নতুন নেশা ‘খাথ’ আটক হয়েছিল কয়েকদিন আগে। আফ্রিকান নেশা ‘খাত’ এর সরকারি ডাকে এসেছে। আর সেটি আটকও হয়েছে। আফ্রিকান দেশ ইথিওপিয়া থেকে বাংলাদেশের ২০ আমদানিকারক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নামে সরকারি ডাকে প্রায় আড়াই কোটি টাকার সাইকোট্রফিক সাবসটেনসেস (এনপিএস) বা ‘খাথ’ জব্দ করেছে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর গত ৩১ আগস্ট বিমানবন্দর থেকে  ৮৬১ কেজি নিউ সাইকোট্রফিক সাবসটেনসেস (এনপিএস) বা খাত উদ্ধারের দিন দশেক পর জিপিও বৈদেশিক পার্সেল শাখা থেকে ৯৬ কার্টন ভর্তি সর্বমোট এক হাজার পাঁচ’শ ছিয়াশি দশমিক ৩৬ কেজি উদ্ধার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডির অর্গানাইজড্ ক্রাইম ( হোমিসাইডাল ও সিরিয়াস)।

সম্প্রতি মালিবাগের সিআইডির সদর দপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য দেন সিআইডির ডিআইজি  ( স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন এন্ড ইনটেলিজেন্স) মো. শাহ আলম। তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার রাতে জিপিও বৈদেশিক পার্সেল শাখা থেকে ৯৬ কার্টন ভর্তি সর্বমোট এক হাজার পাঁচ’শ ছিয়াশি দশমিক ৩৬ কেজি উদ্ধার করা হয়। যার বর্তমান বাজার মূল্য দুই কোটি সাইত্রিশ লাখ পঁচানব্বই হাজার চার’শ টাকা। এ ঘটনায় কেউ আটক না থাকলেও গতকাল সোমবার পল্টন থানায় মাদক দ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বাংলাদেশের কোন কোন প্রতিষ্ঠানের নামে এই মাদক দ্রব্যগুলো এসেছে জানতে চাইলে তিনি বলেন: আমাদের দেশের ২০টি ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের নামে মাদকদ্রব্যগুলো আমদানী হয়েছে। তবে এ বিষয়ে আমরা তদন্ত করছি, ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের ঠিকানা যাচাই বাছাই করছি। তদন্তের স্বার্থে কোন প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তির নাম প্রকাশ করে নি ডিআইজি শাহ আলম। তবে গণমাধ্যমকর্মীদের দেখানোর জন্য যে খাতের কার্টনটি রাখা ছিল সেখানে আমদানীকারা প্রতিষ্ঠানের ঠিকানা ছিল তুরাগের বাদলদির ইশা এন্টারপ্রাইজের নামে।

বাংলাদেশে খাত নামক মাদকের গড ফাদার বা সংশ্লিষ্ট যারা রয়েছে তাদের খুব দ্রুতই আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে বলেও জানান ডিআইজি শাহআলম।


%d bloggers like this: