ঢাকা, সোমবার , ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ | ১৩ মুহাররম ১৪৪০

এশিয়া কাপ কাঁপাবেন রোহিত-ধোনি

একদিন বাদেই মাঠে গড়াচ্ছে এশিয়া কাপ। এতে অংশ নিচ্ছে একঝাঁক তারকা ক্রিকেটার। রয়েছেন রোহিত শর্মা, এমএস ধোনি, শোয়েব মালিক, তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, থিসারা পেরেরা, মোহাম্মদ নবীর মতো ক্রিকেটাররা। সবাই নিজেদের সেরাটা উজাড় করে দিতে উন্মুখ। অনেকে তাদের একেকজনকে এবারের আসরের তারকা ভাবছেন।

তবে পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার আমির সোহেলের বাজি ফখর জামানকে নিয়ে। তার মতে, এবারের এশিয়া কাপ কাঁপাবে ফখর। ইতিবাচক ব্যাটিংয়ের কারণেই সব আলো কেড়ে নেবে সে।

৫১ বছর বয়সী ক্রিকেটার বলেন, জামানের সাফল্যের নেপথ্যে কাজ করবে তার ইতিবাচক মানসিকতা। যে পরিস্থিতিই হোক না কেন, সে ক্রিজে যায় এবং ইতিবাচক ব্যাটিং করে। এটিই বাঁহাতি ওপেনারকে অনেকখানি এগিয়ে দেবে।

১৫ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ-শ্রীলংকা ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠবে এশিয়া কাপে। এটি এশিয়ার সেরা হওয়ার ১৪তম আসর। এর তিন দিন পরই হবে বহু কাঙ্ক্ষিত ভারত-পাকিস্তান মহারণ। আমির সোহেল মনে করেন, সেই ম্যাচ ঘিরে জামানকে নিয়ে ভীতসন্ত্রস্ত থাকবে ভারতীয় বোলাররা। কারণ গেল চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনালে তাদের তুলোধোনা করে ঐতিহাসিক সেঞ্চুরি তুলে নেয় সে। তার সেঞ্চুরিতে ভর করে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন ট্রফি জেতে পাকিস্তান।

এর পর থেকেই ফর্মের মগডালে রয়েছেন ফখর। সবশেষ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজটি স্বপ্নের মতো কাটিয়েছেন তিনি। বইয়ে দিয়েছেন রেকর্ডের স্রোত। গড়েছেন প্রথম পাকিস্তানি হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরি (২১০), সবচেয়ে দ্রুততম এক হাজার রান, পাঁচ ম্যাচ দ্বিপক্ষীয় সিরিজে সর্বোচ্চ রানসহ একাধিক কীর্তি। এ পথে ভেঙেছেন স্বদেশী কিংবদন্তি সাঈদ আনোয়ারের এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ১৯৪ রানের রেকর্ড।

পাকিস্তানের সাবেক ওপেনার বলেন, হাতে ব্যাট নিয়ে নামার সময় তার (ফখর) মাথায় বাইরের কোনো চিন্তা থাকে না। ক্রিজে যায় এবং সোজা ব্যাটে খেলে। ইতিবাচক ক্রিকেট খেলে। ওর সাফল্য পাওয়ার এটিই অন্যতম কারণ।

পাকিস্তানের জার্সিতে ১৫৬ ওয়ানডে ও ৪৭ টেস্ট খেলেছেন সোহেল। ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নামতেন তিনি। ওপেনিংয়ে সাঈদ আনোয়ারের সঙ্গে তার জুটি ছিল প্রতিপক্ষের জন্য ত্রাস।

আজ ২৪ প্রতিবেদক, ঢাকা


%d bloggers like this: