ঢাকা, মঙ্গলবার , ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮, | ৪ পৌষ ১৪২৫ | ১০ রবিউস-সানি ১৪৪০

কি অসাধারণ এক টেস্ট! পাকিস্তানের সঙ্গে জয়ের সমান ‘ড্র’ অষ্ট্রেলিয়ার

কি অসাধারণ

টেস্ট ক্রিকেটের সৌন্দর্য্য বুঝি একেই বলে। কি অসাধারণ এক টেস্ট! পাকিস্তানের সঙ্গে জয়ের সমান ‘ড্র’ করেছে অষ্ট্রেলিয়া। উসমান খাজার প্রায় সাড়ে ছয় ঘন্টার ম্যারাথন ইনিংসে প্রায় অসম্ভব ড্র আদায় করে নিয়েছে অষ্ট্রলিয়া। যাতে যোগ্য সঙ্গত দিয়ে পাকিস্তানের ‘পেইন’ আরো বাড়িয়েছেন অষ্ট্রেলিয় অধিনায়ক টিম পেইন।
দুবাইয়ে পাকিস্তানের জয়ের জন্য দরকার ছিল মাত্র ৭টি উইকেট। অন্যদিকে ম্যাচ বাঁচাতে অস্ট্রেলিয়ার খেলতে হতো ৯০ ওভার। প্রায় নতুন অবয়বের অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে পঞ্চম দিনের টেস্ট পিচ এবং পাকিস্তানের বোলিং লাইনআপ বিবেচনায় যা ছিল প্রায় অসম্ভব এক কাজ। কিন্তু তা সম্ভব করে তুললেন উসমান খাজা এবং টিম পেইন।
চতুর্থ দিনে শেষে অস্ট্রেলিয়া তুলেছিল ৫০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৩৬ রান। শেষদিন জয়ের জন্য ৭ উইকেটে প্রয়োজন ৩২৬ রান। তাই শেষ দিনে অস্ট্রেলিয়ার ভাবনায় জয়ের বেশি গুরুত্বপূর্ণ ছিলো ড্র।

পঞ্চম দিন প্রথম সেশনে কোনো উইকেট হারায়নি অস্ট্রেলিয়া। দিনের প্রথমভাগটা নির্বিঘ্নেই পার করেন আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান খাজা ও হেড। তবে লাঞ্চের পরপরই পার্টটাইম স্পিনার মোহাম্মদ হাফিজের বোলিংয়ে লেগ বিফোরের ফাঁদে ধরা পড়েন অভিষিক্ত হেড। আউট হওয়ার আগে ১৭৫ বল খেলে ৭২ রান করেন তিনি।

অধিনায়ক টিম পেইনকে নিয়ে লড়াই চালিয়ে যান খাজা। তুলে নেন ক্যারিয়ারের সপ্তম টেস্ট সেঞ্চুরি। পেইন ও খাজা মিলে ষষ্ঠ উইকেটে ২১৮ বল খেলে গড়েন ৭৯ রানের জুটি।

দিন শেষের ১৫ ওভার বাকি থাকতে দৃশ্যপটে আবির্ভূত হন পাকিস্তানি লেগস্পিনার ইয়াসির শাহ। দুই ওভারের মধ্যে তুলে নেন তিন উইকেট। ৩০২ বলের ম্যারাথন ইনিংসে ১৪১ রান করে ফেরেন খাজা। দিন শেষের তখনো বাকি প্রায় ১৩ ওভার, কিন্তু হাতে উইকেট মাত্র ২টি।

অফস্পিনার নাথান লিওনকে নিয়ে আবারও মাটি কামড়ে ব্যাটিং শুরু করেন অধিনায়ক পেইন। কাটিয়ে দেন বাকি ওভারগুলো। তুলে নেন ক্যারিয়ারের পঞ্চম হাফসেঞ্চুরি। শেষ পর্যন্ত ২১৯ বল খেলে অপরাজিত থেকে ৬১ রান করে। ১৪০তম ওভারের পঞ্চম বলটি পেইন ঠেকিয়ে দিতেই উল্লাসে মেতে ওঠে অস্ট্রেলিয়ার ড্রেসিংরুম। যেনো ম্যাচটি জিতেই নিয়েছে তারা। ২ উইকেট বাকি থাকায় ৯০ ওভার পূরণ হওয়ার এক বল আগেই ড্র মেনে নেয় পাকিস্তান।

প্রায় সাড়ে ছয় ঘণ্টার ম্যারাথন ইনিংসে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ম্যাচ সেরার পুরষ্কার জিতেছেন উসমান খাজা।


%d bloggers like this: