ঢাকা, মঙ্গলবার , ১৬ জুলাই ২০১৯, | ১ শ্রাবণ ১৪২৬ | ১২ জিলক্বদ ১৪৪০

কৃষি ব্যাংকে নিয়োগ পাবে ৭০৪ জন কর্মকর্তা

আজ ডেস্ক ● কৃষি ব্যাংকে নিয়োগ পাবে ৭০৪ জন কর্মকর্তা। সম্প্রতি রাষ্ট্রীয় খাতের ব্যাংকগুলোতে নিয়োগ-প্রক্রিয়ার অনিয়ম, দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতি রোধে রাষ্ট্রমালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংক এবং রাষ্ট্রায়ত্ত বিশেষায়িত ব্যাংকগুলোতে লোক নিয়োগ-প্রক্রিয়ার জন্য ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি (বিএসসি) নামক একটি কমিটির মাধ্যমে এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে বলে সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় সোনালী ব্যাংক, জনতা ব্যাংকের পর এবার রাষ্ট্রায়ত্ত বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকে কর্মকর্তা পদে নিয়োগের নিমিত্তে প্যানেল প্রস্তুতির জন্য ৭০৪ জনকে নিয়োগ করা হবে বলে বাংলাদেশ ব্যাংক বিভিন্ন পত্রিকায় এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের মাধ্যমে জানিয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক ও ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির সদস্যসচিব লাইলা বিলকিস আরা জানান, ধাপে ধাপে পরবর্তী সময়ে অন্য ব্যাংকগুলোতে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশ করা হবে। এরই মধ্যে অনলাইনে আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে। তাই ব্যাংকে চাকরির স্বপ্ন যাদের, তারা পদটিতে আবেদন করতে পারবেন ৭ জুন পর্যন্ত।

আবেদনের যোগ্যতা
এই পদে আবেদন করতে হলে প্রার্থীকে কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি পাস হতে হবে। মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট এবং তদূর্ধ্ব পর্যায়ের পরীক্ষাসমূহে ন্যূনতম একটিতে প্রথম বিভাগ/শ্রেণি/সমমানের গ্রেড পয়েন্ট থাকতে হবে। কোনো পর্যায়েই তৃতীয় বিভাগ/শ্রেণি/সমমানের গ্রেড পয়েন্ট গ্রহণযোগ্য হবে না। সাধারণ প্রার্থীদের বয়স ০১-০৩-২০১৬ তারিখে সর্বোচ্চ ৩০ বছর থাকতে হবে। অন্যদিকে মুক্তিযোদ্ধা বা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান এবং প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ বয়স ৩২ বছরের মধ্যে হতে হবে।

আবেদন পদ্ধতি
এ পদে আবেদন করতে হবে বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়োগসংক্রান্ত ওয়েবসাইটে ( erecruitment.bb.org.bd) অনলাইন অ্যাপলিকেশন ফরম পূরণের মাধ্যমে। ফরম পূরণ করার নিয়ম ও অন্যান্য শর্ত ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে। অনলাইনে আবেদন করার পর প্রাপ্ত Tracking Number Formটি যথাযথভাবে সংরক্ষণ করতে হবে। প্রার্থীদের প্রাথমিকভাবে কোনো কাগজপত্র প্রেরণ করতে হবে না। লিখিত পরীক্ষা গ্রহণের পর উত্তীর্ণ প্রার্থীদের কাছ থেকে আবেদনে উল্লেখিত তথ্যাদির সমর্থনে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আহ্বান করা হবে। এই নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটাসংক্রান্ত নীতিমালা ও অন্যান্য বিধিবিধান অনুসরণ করা হবে। বিবাহিত মহিলা প্রার্থীদের ক্ষেত্রে স্থায়ী ঠিকানা হিসেবে স্বামীর স্থায়ী ঠিকানা ব্যবহার করতে হবে।

নিয়োগ পদ্ধতি ও বেতনাদি
আবেদনের নির্ধারিত সময় শেষে প্রার্থীদের আবেদনপত্র যাচাই-বাছাইয়ের পর প্রার্থীদের ধাপে ধাপে এমসিকিউ, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। তবে এসব পরীক্ষা কত নম্বরে ও কী কী বিষয়ের ওপর প্রশ্ন থাকবে, সে বিষয়টি এখনো প্রক্রিয়াধীন আছে বলে জানান লাইলা বিলকিস। এসব পরীক্ষার তারিখ পরবর্তী সময়ে বিভিন্ন পত্রিকা ও বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রার্থীদের জানানো হবে। এমসিকিউ, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত একজন কর্মকর্তা জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুযায়ী ১৬ হাজার টাকা স্কেলে বেতন ও অন্যান্য সুবিধা পাবেন।

আজ/ইটি/৩০৭


%d bloggers like this: