ঢাকা, মঙ্গলবার , ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ | ১৫ মুহাররম ১৪৪০

কেনের গোলে ইংল্যান্ডের জয়

অতিরিক্ত যোগ করা সময়ে গোল দিয়ে ইংল্যান্ডকে জয়ের বন্দরে নিয়ে গেলেন হ্যারি কেন। অতিরিক্ত সময়ে জোড়া গোল পূর্ণ করে তিউনিশিয়ার বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে নিজ দলকে আনন্দে ভাসান এই ইংলিশ অধিনায়ক। যদিও ম্যাচে বল দখল ও আক্রমণের পাল্লা থ্রি-লায়ন্সদের দিকেই বেশি ছিল। তবে শেষ দিকে মনে হয়েছিল ড্রতেই শেষ হচ্ছে ম্যাচটি।

ভলগোগ্রাদে ‘জি’ গ্রুপের এ ম্যাচে অবশ্য শুরুটা দুর্দান্তই করেছিল ইংল্যান্ড। ম্যাচের মাত্র ১২ মিনিটে এগিয়ে যায় ১৯৬৬ বিশ্বকাপের শিরোপা‍ধারীরা। হ্যারি কেনের গোলে তিউনিশিয়ার বিপক্ষে ১-০ গোলে লিড নেয় ইংল্যান্ড। জটলা থেকে জন স্টোন্সের হেড প্রথমে তিউনিশিয়া গোলরক্ষক মোয়েজ হাসেন বাধা দিলেও ধরে রাখতে পারেননি। ফিরতি শটে গোলের দেখা পান ইংলিশ অধিনায়ক কেন।

কিন্তু প্রথমার্ধেই সমতায় ফেরে তিউনিশিয়া। ম্যাচের ৩৪ মিনিটে বেন ইউসুফকে নিজেদের বক্সে ইংল্যান্ড ফুটবলার কাইলে ওয়াকার ফাউল করলে রেফারি পেনাল্টির বাঁশি বাজান। আর সেখান থেকে গোল করে তিউনিশিয়াকে ১-১ ব্যবধানের সমতায় ফেরাতে কোনো ভুল করেননি ফেরজানি সাসি।

বিরতির পর ইংল্যান্ড একচেটিয়া আক্রমণ চালায়। কিন্তু তিউনিশিয়ার রক্ষণ কোনোভাবেই ভাঙতে পারছিলো না তারা। অবশেষে নির্ধ‍ারিত সময় শেষে রেফারি ৪ মিনিটে যোগ করলে প্রথম মিনিটেই কেনের হেড থেকে দুর্দান্ত জয়টি তুলে নেয় ইংল্যান্ড। কিয়েরান ট্রিপ্পিয়ারের কর্ণার কিক থেকে বল পান হ্যারি মাগিরে। তিনি আলতো টোকা দিলে সেখান থেকে হেডে গোল করতে সমস্যা হয়নি কেনের।


%d bloggers like this: