ঢাকা, শনিবার , ২৩ মার্চ ২০১৯, | ৯ চৈত্র ১৪২৫ | ১৫ রজব ১৪৪০

‘তার মতো প্রগতিশীল চিন্তার একজন অভিভাবক বড়ই প্রয়োজন’

প্রগতিশীল চিন্তার

দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকীতে অজয় রায়কে স্মরণ করে বক্তারা বলেছেন, জাতীয় জীবনে আজ গভীর সংকট মুহুর্তে তার মতো প্রগতিশীল চিন্তার একজন অভিভাবক বড়ই প্রয়োজন।

সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও সাম্প্রদায়িকতা জঙ্গিবাদ বিরোধী মঞ্চের সমন্বয়ক কলামিস্ট লেখক অজয় রায়ের দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকী পালন করে সামাজিক সংগঠনটি। কেন্দ্রীয় কার্যালয় সংলগ্ন বাংলাদেশ টেনিস ফেডারেশনের চত্বরে প্রয়াত নেতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন ও স্মৃতিচারন অনুষ্ঠানে বক্তারা উপরোক্ত মন্তব্য করেন।
স্মরণ অনুষ্ঠানে বক্তারা আরো বলেন, একজন অগ্রসর চিন্তার মানুষ হিসেবে অজয় রায় দেশের অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক ধারার মানুষের মাঝে বেঁচে থাকবেন, তিনি নিজে যেমন চিন্তাশীল ছিলেন তেমনি দেশের সাধারণ মানুষের প্রতি আস্থাশীল ছিলেন। তিনি বিশ্বাস করতেন বাংলাদেশের মানুষ জাতিসত্বার প্রতি আস্থাশীল থেকে মুক্তিযুদ্ধের অসাম্প্রদায়িকতাকে অগ্রসর করে নেবে।’ অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, এখন প্রয়োজন মুক্তমনা অসম্প্রদায়িক চেতনা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পক্ষের শক্তির বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তোলা। অজয় রায় আমৃত্যু সন্ত্রাসবাদ সাম্প্রদায়িকতাবাদের বিরুদ্ধে লড়ে গেছেন। একইসাথে তিনি ধন বৈষম্য ও লুটেরা মুক্ত একটি মানবিক সমাজ গড়ে তোলার স্বপ্নে রাজনীতির পাশা পাশি সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়ে গেছেন। দেশের এই ক্রান্তি কালে অজয় রায় যে পথ দেখিয়ে গেছেন তা সকলের অনুকরনীয় হয়ে থাকবে দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকী দেশবাসী তাঁর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানাচ্ছে।

সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের প্রধান উপদেষ্টা জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান বলেন, ‘ষাটের দশক থেকে অজয় রায় এদেশের মাটিও মানুষের পক্ষে সমাজ-প্রগতির ধারা কে সমুন্নত রাখতে লড়াই সংগ্রাম করে গেছেন। তাঁর এই আদর্শ তরুন প্রজন্মের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়াই হোক আজকের দিনের অঙ্গীকার।’ পদার্থ বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. অজয় রায় বলেন, ‘অজয় রায় যে পটভূমিকে সামনে রেখে প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক শক্তির ঐক্য তৈরির পথ রচনা করেছেন, সেই বাস্তবতা আজ আরও তীব্র আকার ধারন করেছে। তাই মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের বাম-প্রগতিশীল-গণতান্ত্রিক শক্তির প্রকৃত ঐক্যই পারে বাংলাদেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে।’

অজয় রায়ের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে স্মৃতিচারন করেন ডা. সারওয়ার আলী, ড. নুহ আলম লেলিন, আনিসুর রহমান মল্লিক, এডভোকেট আসাদুল্লাহ তারেক, অজয় রায়ের সহধর্মিনী জয়ন্তী রায়, জিয়াউদ্দিন তারেক আলী প্রমূখ।

প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান জিয়াউদ্দিন তারেক আলীর নেতৃত্বে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন, সাম্প্রদায়িকতা জঙ্গীবাদ বিরোধী মঞ্চ, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, জাসদ (আম্বিয়া), ঐক্যন্যাপ, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র, বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরাম, গৌরব ৭১, আইইডি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ (বিসিএল), সংস্কৃতি মঞ্চ, সাইফুদ্দিন আহমেদ মানিক ক্রিকেট টুর্নামেন্ট কমিটি, সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন ঢাকা মহানগরসহ বিভিন্ন ব্যাক্তি ও সংগঠন। সভা সঞ্চালনা করেন সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক সালেহ আহমেদ ।


%d bloggers like this: