ঢাকা, মঙ্গলবার , ২৩ জুলাই ২০১৯, | ৮ শ্রাবণ ১৪২৬ | ১৯ জিলক্বদ ১৪৪০

‘দেশত্যাগ’ : রোহিঙ্গাদের জীবন সংগ্রাম নিয়ে প্রদর্শনী

রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর জীবন সংগ্রাম নিয়ে মার্কিন আলোকচিত্রী প্যাট্রিক ব্রাউনের প্রদর্শনী ‘দেশত্যাগ’ আলিয়সঁ ফ্রসেজে শুরু হয়েছে। প্রর্দশনীটি দর্র্শনার্থীদের মনে করিয়ে দেবে যে এ সংকট সহসাই শেষ হচ্ছে না।

আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত ফটোগ্রাফার প্যাট্রিক ব্রাউনের এক বছর ধরে তোলা এসব ছবিতে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ব্যাপক হারে আগমনের শুরুর সময়, তাদের দৃঢ়তা, তাদের আশ্রয়প্রদানকারী স্থানীয় জনগোষ্ঠী, জরুরি পরিস্থিতি মোকাবেলায় গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপ এবং রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর প্রতি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তার বিষয়গুলো ফুটে উঠেছে।

সোমবার (১০ ডিসেম্বর) ইউনিসেফ বাংলাদশে ও আলিয়সঁ ফ্রসেজ দ্য ঢাকার যৌথ আয়োজনে প্রদর্শনীটি আনুষ্ঠানকিভাবে উদ্বোধন করেন ইউনিসেফ বাংলাদশেরে শুভচ্ছো দূত ও ক্রিকেট তারকা সাকিব আল হাসান ও ইউনিসেফ বাংলাদেশের প্রতিনিধি অ্যাডওর্য়াড বেগবেদার এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত ফরাসি রাষ্ট্রদূত ম্যারি আনিক বুখডা।

প্রদর্শনীটি চলবে ২২ ডিসেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত। সোমবার থেকে বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টা থেকে রাত ৯টা এবং শুক্রবার ও শনিবার সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা এবং বিকাল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত প্রদর্শনীটি খোলা থাকবে। রোববার সাপ্তাহিক বন্ধ।

সাকিব আল হাসান বলেন, ‘আমাদের সবাইকে একসঙ্গে এগিয়ে আসতে হবে এ সমস্যা সমাধানে।’

অ্যাডওয়ার্ড বেগবেদার বলেন, এ প্রদর্শনী শুধু বিপদগ্রস্ত জনগোষ্ঠীর অসহায়ত্ত ও হতাশাই তুলে ধরেনি, একইসঙ্গে এটি নৈমিত্তিক জীবনে ঘুরে দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে তাদের মনোবলকেও তুলে ধরেছে। যেখানে মৌলিক প্রয়োজনগুলো মেটানোর জন্য খুব সামান্য সহায়তাই তারা পাচ্ছে। প্যাট্রিক ব্রাউন বলেন, এ সমস্যা ১৯৭১-এর নয়। এটা ২০১৭ সালে শুরু হওয়া সমস্যা। কিন্তু তার সমাধানে অনেক দেশ নিশ্চুপ। এটা যদি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইংল্যান্ড, কানাডার সঙ্গে হতো তারা এত বিশাল জনগোষ্ঠীকে আশ্রয় দিত না। বাংলাদেশ অসাধারণ মনাবিকতার পরিচয় দিয়েছে।

আজ ২৪ প্রতিবেদক, ঢাকা


%d bloggers like this: