ঢাকা, মঙ্গলবার , ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ | ১৫ মুহাররম ১৪৪০

পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদে দুর্ঘটনায় ৫ তৃণমূল নেতার মৃত্যু

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেস এর ৫ নেতার মৃত্যু হয়েছে। বোলেরো গাড়ি এবং বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে মৃত্যু হল মুর্শিদাবাদের পাঁচ তৃণমূল নেতা সহ মোট ছ’জনের মৃত্যু হয়।। এদের মধ্যে চার জন নব নির্বাচিত পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য ।

আনন্দবাজার জানায়,  ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের মারিশদায়, ১১৬ জাতীয় সড়কের উপর। বুধবার সকাল ৬.৩০ টা নাগাদ মুর্শিদাবাদের কান্দি থেকে আসা ওই বোলেরো গাড়ির সঙ্গে বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। মৃতেরা হলেন কান্দি ব্লকের কৃষি কর্মাধ্যক্ষ হায়দার আলি, পূর্ণধরপুরের পঞ্চায়েত সভাপতি সমরনাথ ঘোষ, পঞ্চায়েত সদস্য দেবসাগর দে, কান্দি ব্লকের পূর্ত কর্ম্যাধক্ষ কালা হাজি এবং পূর্ণধরপুরের অঞ্চল সভাপতি অসিত দাস। মৃতদের মধ্যে চারজন কান্দি পঞ্চায়েত সমিতির নির্বাচনে জয়ী হয়েছিলেন। মৃত্যু হয়েছে তাঁদের গাড়ির চালক প্রদীপ দাসেরও।

মৃতেরা প্রত্যকেই মুর্শিদাবাদ জেলার কান্দির বাসিন্দা। তাঁরা কান্দি থেকে দিঘায় যাচ্ছিলেন। দিঘা থেকে প্রায ৪০ কিলোমিটার দূরে মারিশাদায় একটি গাড়িকে ওভারটেক করার পর নিয়ন্ত্রণ হারানো দীঘা থেকে হাওড়াগামী বাস প্রবল গতিতে বোলেরো গাড়িটিকে ধাক্কা দেয়। আর তাতেই গাড়িটি প্রায় তালগোল পাকিয়ে যায়। ঘটনাস্থলেই মত্যু হয়েছিল পাঁচ জনের। গুরুতর জখম অবস্থায় পূর্ণধরপুরের অঞ্চল সভাপতি অসিত দাসকে নিয়ে যাওয়া হয়ছিল কাঁথি হাসপাতালে। কিন্ত তাঁকেও বাঁচানো যায়নি।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের ধারণা, দুর্ঘটনার সময় বাসটি ছুটছিল ৮০-৯০ কিলোমিটার গতিতে। গাড়িটির গতি ছিল একশোর কাছাকাছি। দুই গাড়ির গতি বেশি থাকার ফলেই ভয়ঙ্কর দু্র্ঘটনা ঘটেছে বলে পুলিশের ধারণা। দুর্ঘটনার পর কাঁথি মহকুমা হাসপাতালে যান পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। বাসটিকে আটক করা গেলেও চালক ও হেল্পারকে ধরতে পারেনি পুলিশ।


%d bloggers like this: