ঢাকা, রবিবার , ১৮ নভেম্বর ২০১৮, | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ৯ রবিউল-আউয়াল ১৪৪০

ফুটবল মাঠে গোল করে উসাইন বোল্ট ফেরালেন তীর ছোড়ার ভঙ্গি

ফুটবল মাঠে

ফুটবল মাঠে ট্র্যাক ফিল্ডের পরিচিত তীর ছোড়ার ভঙ্গি ফিরিয়ে এনেছেন উসাইন বোল্ট। ফুটবলে তার সামর্থ্য নিয়ে সন্দিহানদের ভুল প্রমাণ করে দিয়ে জামইকান স্প্রিন্টার প্রথম একাদশে থাকা উদযাপন করেছেন দুই গোলের মাধ্যমে।
ইতিহাসের সেরা দৌড়বিদ উসাইন বোল্ট ট্র্যাক ছাড়লেও ক্যারিয়ারের মধ্যগগনে বেছে নেন পেশাদার ফুটবলকে। এই সিদ্ধান্ত অনেকের মনোপুত ছিলনা। ফুটবলে তার সমার্থ্য নিয়ে সন্দিহান ছিলো অনেকেই। তাই বলে বসে থাকার পাত্র নন জ্যামাইকান এই স্প্রিন্টার। ফুটবলার বনে যেতে নিজের শুরুর একাদশে অভিষেকেই করেছেন দুই গোল!

অস্ট্রেলিয়ার সেন্ট্রাল কোস্ট মেরিনার্সের হয়ে ম্যাকারথার সাউথ ওয়েস্টের বিপক্ষে শেষ দুই গোল ছিল উসাইন বোল্টের। তার জোড়া গোলে ৪-০ তে জিতেছে মেরিনার্স। পেশাদার ফুটবলে তার যে নতুন শুরু তার জানান দিয়েছেন চিরচেনা ভঙ্গিতে উদযাপন করে। সেই তির ছুঁড়ে দেওয়ার ভঙ্গিতে গোলের মুহূর্তগুলো উদযাপন করেছেন।

ট্র্যাকে তার রেকর্ড এখনও ছুঁতে পারেনি কেউ। অলিম্পিকে ৮টি স্বর্ণ পদক জেতা এই স্প্রিন্টার ফুটবলেও দারুণ পেশাদার। সেই অসাধ্য সাধন করতে পরিশ্রম যে করেছেন তা জানালেন নিজের মুখে, ‘স্বপ্নটা বাস্তবে রূপ নিয়েছে শুধু মাত্র পরিশ্রমের মধ্য দিয়ে।’

আগস্টে ‘এ’ লিগের হয়ে পেশাদার ফুটবলে যোগ দেন উসাইন বোল্ট। তবে পূর্ণ চুক্তি দিতে মৌসুম শুরুর আগে তাকে পরখ করে নেওয়ার অপেক্ষায় ছিলো মেরিনার্স। তাই দুই গোল পেয়ে দারুণ তৃ্প্ত তিনি, ‘আমার প্রথম শুরু সঙ্গে দুই গোল; অনুভূতিটা দারুণ।’

শুরুর গোলটায় পেশাদার ফুটবলারের পরিচয় পাওয়া গেছে বোল্টের মাঝে। প্রতিপক্ষের রক্ষণে বাম প্রান্ত দিয়ে ঢুকে সতীর্থের চিপ করা বল থেকে লক্ষ্য ভেদ করেন। পরের গোলটা করেন গোলরক্ষককে বোকা বানিয়ে। নিজের মুখেই জানালেন সেই উন্নতির কথা, ‘আমি এখানে আসতে পেরে আনন্দিত। একই সঙ্গে বিশ্বকে দেখাতে পেরেও যে আমি উন্নতি করছি। আমি মেরিনারের একজন হতে মুখিয়ে আছি। যাতে করে নিজের সেরাটা দিতে পারি আর দলে স্থান পোক্ত করতে পারি।’- বিবিসি, ফক্স স্পোর্টস।

গোলের পর উসাইন বোল্ট


%d bloggers like this: