ঢাকা, শনিবার , ২৩ মার্চ ২০১৯, | ৯ চৈত্র ১৪২৫ | ১৫ রজব ১৪৪০

বঙ্গবন্ধুর নাম এড়িয়ে গেলেন ফখরুল

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ও সমাজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে জনগণ দেশ স্বাধীন করেছে- এমন বক্তব্য লেখা ছিল বিবৃতিতে। কিন্তু তা পাঠ করার সময় বঙ্গবন্ধুর নাম এড়িয়ে গেলেন বিএনপি মহাসচিব এবং ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার (৮ জানুয়ারি) জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেনের বেইলী রোডের বাড়িতে স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলন করেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা।

সেখানে ঐক্যফ্রন্টের বিবৃতি পাঠ করার সময় প্রথম বাক্যের কিছু শব্দ পড়ার পর ইচ্ছাকৃত ভাবেই বঙ্গবন্ধুর নাম থাকায় তা বাদ দিয়ে পরের অংশ থেকে পড়া শুরু করেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

ওই বৈঠকে জাতীয় সংলাপ’, নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলা ও নির্বাচনে সহিংসতা হওয়া এলাকায় গণসংযোগের কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। তবে জাতীয় সংলাপ কবে থেকে শুরু হবে, সেই বিষয়ে কোনো সময়সীমা জানানো হয়নি।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে চারটায় ঢাকার বেইলি রোডে ড. কামাল হোসেনের বাসায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বৈঠক শুরু হয়। বৈঠক শেষে একটি বিবৃতি পাঠ করে শোনান বিএনপির মহাসচিব ও ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচন কমিশন দেশের মালিক জনগণের সাথে প্রতারণা করেছে। অত্যন্ত ন্যক্কারজনকভাবে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের অপব্যবহার করে এবং সেনাবাহিনীর কার্যকর ভূমিকাকে নিষ্ক্রিয় করে নির্বাচনকে প্রহসনে পরিণত করেছে।’

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন বলেন, বৈঠকে নির্বাচন নিয়ে আলোচনা হয়েছে। জনগণ যে নির্বাচনের মাধ্যমে প্রতিনিধি বাছাই করে নিতে পারত, সেই নির্বাচন হয়নি।

বিবৃতি পাঠের সময় ছিলেন ড. কামাল হোসেন, বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, আ স ম আব্দুর রব, মাহমুদুর রহমান মান্নাসহ শীর্ষ নেতারা।

আজ ২৪ প্রতিবেদক, ঢাকা


%d bloggers like this: