ঢাকা, বুধবার , ২৪ জুলাই ২০১৯, | ৯ শ্রাবণ ১৪২৬ | ২০ জিলক্বদ ১৪৪০

বাংলাদেশ থেকে ইরান নিতে চায় পাট দিতে চায় জ্বালানি তেল

বাংলাদেশ থেকে ইরান নিতে চায় এক সময়ের সোনালী আশ পাট আর বিনিময়ে তারা দিতে চায় জ্বালানি তেল। বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতে ইরানের বিদায়ী রাষ্ট্রদূত আব্বাস ভেইজি দেহনাভি তাদের আগ্রহের কথা জানান।

গণভবনে এই বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম আলোচনার বিষয়বস্তু সাংবাদিকদের জানান। রাষ্ট্রদূত পণ্য বিনিময় বাণিজ্যের উপর জোর দিয়েছেন জানিয়ে ইহসানুল করিম বলেন, “ইরান পাট নিতে চায়। তার বিনিময়ে অপরিশোধিত তেল দিতে চায়।”

বাংলাদেশের পাটের সুনাম বিশ্বজোড়া ছিল; তাতে ছেদ ঘটলেও পাটের সুদিন ফেরানোর চেষ্টায় রয়েছে সরকার। অন্যদিকে ইরান বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম জ্বালানি তেল রপ্তানিকারক দেশ। বিশ্বের অপরিশোধিত তেলের বাজারের ৪ দশমিক ৮ শতাংশ তাদের দখলে।

যুক্তরাষ্ট্রের নানা নিষেধাজ্ঞায় থাকা ইরানের রাষ্ট্রদূত দেহনাভি দুই দেশের অর্থনৈতিক সহযোগিতা বাড়ানোর কথাও বলেন। ইহসানুল করিম বলেন, রোহিঙ্গা সঙ্কটে বাংলাদেশের অবস্থানের প্রতি সমর্থন জানিয়ে ইরানের রাষ্ট্রদূত মিয়ানমারের উপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়ানোর পক্ষে মত দেন।

রোহিঙ্গাদের জন্য ইরানের তহবিল সংগ্রহের কথাও বলেন দেহনাভি। বাংলাদেশে শরণার্থী রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তরের বিষয়টিও আলোচনায় আসে। প্রধানমন্ত্রী এ সময় বলেন, ওআইসিভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে কোনো সমস্যা থাকলে তা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা যায়।

সাক্ষাকালে মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।


%d bloggers like this: