ঢাকা, সোমবার , ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, | ৩ পৌষ ১৪২৫ | ৯ রবিউস-সানি ১৪৪০

মধু’ময় প্রতিদিন, নিরোগ কিংবা সুস্থতায়

‘মধু’ময়

সুস্থ থাকতে চাইলে প্রতিদিন ‘মধু’ময় হওয়া উচিত আমাদের প্রত্যেকের। প্রাচীন আমল থেকে ’মধু’ ব্যবহার হয়ে আসছে সুস্থতার জন্য। নিরোগ প্রতিদিন প্রতিমুহুর্তের জন্য। কারণ এতে রয়েছে ভিটামিন, মিনারেল এবং আরও বেশকিছু উপকারী উপাদান যা সুস্থতার জন্য অপরিহার্য। পাশাপাশি ঠাণ্ডা, কাশিতে মধু খেলেও উপকার মেলে।

ধু’র উপকারিতা

  • প্রতিদিন মধু খেলে বাড়ে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। মধুতে থাকা অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান শরীরের ভেতরে থাকা খারাপ ব্যাকটেরিয়াকে বাঁচতে দেয় না। সেই সঙ্গে রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে এতটাই চাঙ্গা করে তোলে যে অন্যান্য ক্ষতিকর জীবাণুও শরীরের ধারে কাছে ঘেঁষতে পারে না।
  • নিয়মিত গরম পানির সঙ্গে পরিমাণ মতো মধু এবং দারুচিনি পেস্ট মিশিয়ে খেতে পারেন। আর্থ্রারাইটিসের মতো রোগ থেকে থাকতে পারবেন দূরে।
  • গবেষণা মতে, টাইপ ২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা হ্রাস পায় নিয়মিত মধু খেলে।
  • শরীরের দূষিত পদার্থ বের করতে সাহায্য করে মধু।
  • অল্প মধুর সঙ্গে দারুচিনি মিশিয়ে চিবিয়ে খান। ভালো থাকবে দাঁত।
  • এনার্জির ঘাটতি দূর করে মধু।
  • প্রতি চামচ মধুতে কমবেশি ৬৪ ক্যালোরি থাকে। এই পরিমাণ ক্যালোরি শরীরে প্রবেশ করলে ওজন বাড়ার আশঙ্কা থাকে না।
  • মধুতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, ক্যালসিয়াম এবং আয়রন রয়েছে। তাই সুস্থ থাকার জন্য নিয়মিত মধু খাওয়ার বিকল্প নেই।
  • ক্যানসার থেকে দূরে থাকতে মধু খান নিয়মিত। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হার্ট ভালো রাখে।
  • এক গ্লাস গরম পানিতে মধু মিশিয়ে পান করুন। নিয়মিত পান করলে দূর হবে মেদ।
  • হঠাৎ হাঁচি-কাশির ঝামেলায় পড়লে এক গ্লাস গরম পানিতে কয়েক চামচ মধু মিশিয়ে পান করুন। উপকার মিলবে দ্রুত।

%d bloggers like this: