ঢাকা, মঙ্গলবার , ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ৩ রবিউস-সানি ১৪৪০

যশোরে গলা কেটে হত্যা, ঝিনাইদহের মাঠে গুলিবিদ্ধ লাশ

যশোর শহরে একজনকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। নিহত সোহাগ শহরের কাজীপাড়া এলাকার সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে। আর ঝিনাইদহ সদর উপজেলায় একজনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।তিনি শফিউদ্দিন ওরফে মিনি সদর উপজেলার চোরকোল গ্রামের সোবারেক মণ্ডলের ছেলে।

যশোর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক কাজল মল্লিক জানান, শুক্রবার ( ২৯ সেপ্টেম্বর) রাত পৌনে ১টার দিকে তাকে হাসপাতালে আনা হয়। কিন্তু তার আগেই মৃত্যু হয়। সোহাগ অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মারা গেছেন। তার পেট ও বুকের সাত জায়গায় ছুরি মারা হয়েছে। এছাড়া ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলার নলি কেটে ফেলা হয়েছে।

সোহাগের ভাই সমরাজ জানান, রাত সাড়ে ১২টার দিকে কাজীপাড়া আমতলায় তাকে ছুরি মেরে ও গলা কেটে ফেলে রাখার খবর আসে। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। সোহাগ ঠিকাদারি করতেন বলে জানালেও তিনি কিসের ঠিকাদার ছিলেন তা বলতে পারেননি সমরাজ।

কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে সে বিষয়েও তিনি কিছু বলতে পারেননি। পুলিশও কিছু বলতে পারেনি। কোতোয়ালি থানার এসআই সোবহান শরীফ জানান, তারা ঘটনা তদন্ত করার পাশাপাশি খুনি ধরতে অভিযান চালাচ্ছেন।

ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি এমদাদুল হক শেখ জানান, শুক্রবার রাত আড়াইটার দিকে বংকিরা গ্রামের গোলাগুলির খবর পেয়ে পুলিশৈ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। ওসি হক বলেন, “বংকিরা গ্রামের মাঠে দুই দল ডাকাতের মধ্যে গোলাগুলি হচ্ছে এমন খবর পেয়ে পুলিশ যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে মিনির গুলিবিদ্ধ লাশ মেলে।

ঘটনাস্থল থেকে একটি দেশি ওয়ান শুটার গান, এক রাউন্ড গুলি, একটি হাতবোমা ও বেশ কয়েকটি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে জানিয়ে ওসি হক বলেন, মিনির নামে একটি হত্যাসহ পাঁচটি ডাকাতি মামলা রয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আজ ২৪ প্রতিনিধি, যশোর ও ঝিনাইদহ


%d bloggers like this: