ঢাকা, মঙ্গলবার , ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮, | ৪ পৌষ ১৪২৫ | ১০ রবিউস-সানি ১৪৪০

সিনেপ্লেক্সসহ শপিংমল তৈরীর পরিকল্পনায় ২ বছরের জন্য বন্ধ হচ্ছে উপহার

শপিংমল তৈরীর

সিনেপ্লেক্সসহ শপিংমল তৈরীর পরিকল্পনায় ২ বছরের জন্য বন্ধ হচ্ছে রাজশাহীর উপহার সিনেমা হল। মালিকের বরাত দিয়ে তথ্যটি আজ২৪কে জানিয়েছেন হলটির  ব্যবস্থাপক মাসুম। সিনেমাটি হলটি একেবারে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে এমন তথ্য সাংবাদিকদের অতিরিক্ত আবেগের বশবর্তী হয়ে করা প্রতিবেদনের কারণে ছড়িয়েছে বলে জানান তিনি।
একমাত্র সিনেমা হল ‘উপহার’ বণ্ধের ঘোষনাটি ঠিক নয় বলে মালিকের বরাত দিয়ে জানান মাসুদ।তিন বলেন প্রতিষ্ঠানের মালিকদের অন্যতম প্রদর্শক সমিতির সাবেক সভাপতি সাইফুল ইসলাম। তিনি আমেরিকায় অবস্থান করছেন। দেশে ১৫ তারিখ ফিরে এ বিষয়ে তার অবস্থান ব্যাক্যা করবেন।’ মালিক সিনেমা হলের লাইসেন্স ত্যাগ করেননি জানিয়ে মাসুদ বলেন,এখানে শপিং মল করার পাশাপাশি তাতে একাধিক সিনেপ্লক্স এর পরিকল্পনা রয়েছে মালিকপক্ষের। নির্মাণ কাজ শেষ হতে ২ বছর লাগবে। ততদিন সিনেমা হল বন্ধ থাকবে। এ নিয়ে বিভ্রান্তির অবকাশ নেই।

এদিকে উপহার সিনেমা হল রক্ষায় স্থানীয় সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা এবং মেয়র খায়রুজ্জামান লিটনের কাছে স্মারজ্জমান লিটনের কাছে বৃহস্পতিবার স্মারকলিপি পেশ করে রাজশাহীর বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন। বুধবার জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি দেয় তারা।
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদের সভাপতি ও চলচ্চিত্র নির্মাতা ড. সাজ্জাদ বকুল, বরেন্দ্র ফিল্ম সোসাইটির সভাপতি সুলতানুল ইসলাম টিপু এবং ঋত্বিক ঘটক ফিল্ম সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক এবং সিনেমাটোগ্রাফার ও অভিনেতা মাহমুদ হোসেন মাসুদ এই স্মারকলিপি তুলে দেন।
রাজশাহী ১ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা আজ২৪কে বলেন, প্রথমে জেনেছি বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। এখন শুনছি সিনেপ্লক্স হবে। তবে শহরে যেন সিনেমা হল থাকে সেট নিশ্চিত করব আমরা। আর সিনেপ্লেক্স এর জন্য যতদিন বন্ধ থাকবে সিনেমা হলটি তার পজায়গায় শহরে আরেকটি সিনেমা হল করার জন্য সহযোগিতা করব আমরা।’
আগামী ১২ অক্টোবর থেকে ‘উপহার’ সিনেমা হল বন্ধ করে দেওয়ার সংবাদ আসে বিভিন্ন গণমাধ্যমে। প্রকাশিত সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে রাজশাহীর চলচ্চিত্র সংসদসমূহ, রাজশাহী ফিল্ম সোসাইটি, ঋত্বিক ঘটক ফিল্ম সোসাইটি, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদ, বরেন্দ্র ফিল্ম সোসাইটি ও চিলড্রেন্স ফিল্ম সোসাইটির রাজশাহী শাখা, আন্দোলনে নামে। এসব চলচ্চিত্র সংসদের ব্যানারে গত ৭ অক্টোবর সাহেববাজার জিরো পয়েন্টে মানববন্ধন, ৮ অক্টোবর ‘উপহার’ হলের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়। এসব কর্মসূচিতে রাজশাহীর সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা ছাড়াও সর্বস্তরের মানুষ অংশগ্রহণ করে।
রাজশাহীতে ২৫টি সিনেমা হল ছিল। সেখান থেকে সিনেমা হলের সংখ্যা এক যুগে একে নেমে আসে। উপহার সাময়িক বন্ধ যাওয়ার মধ্য দিয়ে সিনেমা হল শূণ্য হয়ে পড়ছে রাজশাহী।


%d bloggers like this: