ঢাকা, সোমবার , ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, | ৩ পৌষ ১৪২৫ | ৯ রবিউস-সানি ১৪৪০

হ্যামদের সহযোগিতায় বড় আয়োজনে জাম্বুরী শুরু ১৯ অক্টোবর

হ্যামদের সহযোগিতায়

অ্যামেচার রেডিও অপারেটর যারা বিশ্বজুড়ে হ্যাম বলে পরিচিত। সেই হ্যামদের সহযোগিতায় বড় আয়োজনে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ৬১তম জোটা বা রেডিও জাম্বুরি। একই সঙ্গে ২২ তম জোটি বা ইন্টারনেট জাম্বরির আয়োজন করেছে বাংলাদেশ স্কাউটস।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত ১৯ থেকে ২১ অক্টোবর দেশব্যাপী এই উৎসবে ১৫ হাজারেরও বেশি স্কাউট সদস্য অংশ নেবে।

এবারের জোটা উৎসবের থিম নির্ধারণ করা হয়েছে ‘লাইফ অন দ্যা ল্যান্ড’। স্কাউটদের ভাষায় ‘জোটা’ হলো দেশে-বিদেশের স্কাউটদের সঙ্গে রেডিওতে কথা বলার একটি অনুষ্ঠান। যেটাকে সংক্ষেপে বলা হয় জাম্বুরি অন দ্যা এয়ার।

অন্যদিকে ‘জোটি’ হলো ইন্টারনেট ব্যবহার করে স্কাউটদের সঙ্গে কথাবলা। এটাকে স্কাউটরা বলেন জ্যাম্বুরি অন দ্যা ইন্টারনেটে।

এই আয়োজনে অংশগ্রহণকারী কর্মকর্তা ও স্কাউটস সদস্যদের প্রশিক্ষণের জন্য শনিবার কাকরাইলের স্কাউট ভবনে প্রি-জাম্বুরি অরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামের আয়োজন করা হয়েছিল।

সকালে প্রি-অরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ স্কাউটসের ভারপ্রাপ্ত প্রধান জাতীয় কমিশনার ও জাতীয় ভূমি সংস্কার বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. মাহফুজুর রহমান। যিনি বাংলাদেশ সরকারের একজন সিনিয়র সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।এসময় তিনি বলেন, বাংলাদেশের অ্যামেচার রেডিও অপারেটরদের সহযোগিতায় এবার বড় আয়োজনে ৬১ তম জোটা ও ২২ তম  জোটাজোটি উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। স্কাউটদের এই উৎসবের অংশ হিসেবে ১৫ হাজারেরও বেশি স্কাউট সদস্য অ্যামেচার রেডিও অপারেটরদের মাধ্যমে দেশ-বিদেশের স্কাউটসদের সঙ্গে রেডিওর মাধ্যমে কথা বলবেন। তিনি জোটা জোটি উৎসবে অংশ নিয়ে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার জন্য দেশের অ্যামেচার রেডিও অপারেটরদের ধন্যবাদ জানান।

অনুষ্ঠানে হ্যাম সংগঠক অনুপ কুমার ভৌমিক বলেন, ‘বাংলাদেশ স্কাউটসের আহ্বানে জোটায় অংশ নিচ্ছে ৪২ জন হ্যাম। হ্যাম ও স্কাউটদের সহযোগিতায় ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ১৬টি হ্যাম রেডিও স্টেশন স্থাপন করা হবে। এসব স্টেশনে এসে স্কাউটস সদস্যরা হ্যাম রেডিওর মাধ্যমে দেশ-বিদেশের স্কাউটসদের সঙ্গে কথা বলবেন। অনুপ কুমার ভৌমিক জানান, স্কাউটদের জোটা বা রেডিও জাম্বুরিতে সারা পৃথিবীতেই হ্যামরা সহযোগিতা করে আসছে। বাংলাদেশেও জোটা উৎসবে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে হ্যাম রেডিও অপারেটররা।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ৬১ তম জোটা উৎসবে ঢাকাসহ দেশের আরো পাঁচটি স্থানে এইচএফ হ্যাম রেডিও স্থাপন করা হবে। ইউএইচএফ রেডিও স্টেশন হবে ১১টি। এসব স্টেশনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে থাকবে বাংলাদেশ স্কাউটস।

বাংলাদেশ স্কাউটসের জাতীয় উপ কমিশনার(স্পেশাল ইভেন্টস) মীর্জা আলী আশরাফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় কমিশনার (স্পেশাল ইভেন্টস) মো. মোফাজ্জেল হোসেন, জাতীয় উপ-কমিশনার (আন্তর্জাতিক) মো. মনিরুল ইসলাম, বাংলাদেশ স্কাউটসের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক মো. আবু মোতালেব প্রমুখ।

অরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে বাংলাদেশ স্কাউটসের আওতাধীন বিভিন্ন জেলা, বিশেষ অঞ্চলভূক্ত জেলা ও জেলা রোভারের শতাধিক কর্মকর্তা ও রোভার স্কাউট অংশ নেন।


%d bloggers like this: