ঢাকা, সোমবার , ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, | ৯ আশ্বিন ১৪২৫ | ১৩ মুহাররম ১৪৪০

১৫ হাজার টাকায় এক লাখ ভারতীয় জাল রুপি!

দরদুজ্জামান বিশ্বাস ওরফে জামান (৫৭) এক লাখ ভারতীয় জাল রুপির বান্ডিল ১৫ হাজার টাকায় বিক্রি করতেন। এভাবে তিনি বিপুল সম্পদের মালিক হয়েছেন। তবে বৃহস্পতিবার (৬ সেপ্টেম্বর) রাতে তাকে রাজশাহী নগরের বেলদারপাড়া এলাকার বাড়ি থেকে আটক করেছে র‌্যাব।

বোয়ালিয়া থানার ওসি আমান উল্লাহ বলেন, ঢাকা থেকে আসা র‌্যাব ২-এর একটি দল এই অভিযান চালায়। তারা জামানে বাড়িতে ভারতীয় জাল রুপি তৈরির কারখানা দেখতে পান।

তার কাছ থেকে থেকে ১১ লাখ ভারতীয় জাল রুপি উদ্ধার করেন র‌্যাব সদস্যরা। এছাড়া তৈরির মেশিনসহ নানা সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। জামান দেশে ভারতীয় জাল রুপি তৈরির মূল হোতা।”

মামলার নথির বরাতে ওসি আমান বলেন, জামান এর আগেও একাধিকবার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ধরা পড়েন। সর্বশেষ জানুয়ারিতে রাজশাহী থেকেই তাকে গ্রেপ্তার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। তখন তার কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ জাল রুপি ছাড়াও ল্যাপটপ, প্রিন্টার মেশিন, লেমিনেটিং মেশিন, হ্যালোজেন লাইট, স্ক্যানিং করার প্রিন্টার ফ্রেম, কাগজ, বিভিন্ন ধরনের কার্টিজ জব্দ করা হয়।

জামান মাসখানেক আগে জামিনে মুক্তি পান জানিয়ে ওসি আমান বলেন, ঢাকায় তার চক্রের সদস্যরা ধরা পড়ায় তিনি তার কার্যক্রম রাজশাহী মহানগরীতে নিজের ওই বাড়িতে শুরু করেন।

জামান চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার শেখতোলা গ্রামের রহিদুল ইসলামের ছেলে বলে জানান ওসি আমান।

তিনি বলেন, জামান ১৯৮৮ সাল থেকে বাংলাদেশি জাল টাকা ও ভারতীয় জাল রুপি তৈরি করে আসছেন। তার চক্রটি ভারতের সীমান্তবর্তী এলাকায় জাল রুপি সরবরাহ করে।

জামান বরাবরই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ‘মোস্ট ওয়ানটেড’ তালিকায় আছেন। তার নামে তিনটি মামলা আগেই আছে। সর্বশেষ র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার ঘটনায় শুক্রবার ‌র‌্যাবের পক্ষ থেকে আরও একটি মামলা হয়েছে।

আজ ২৪ প্রতিবেদক, রাজশাহী


%d bloggers like this: