ঢাকা, শনিবার , ২০ অক্টোবর ২০১৮, | ৫ কার্তিক ১৪২৫ | ১০ সফর ১৪৪০

বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক উদ্ধার ‘রাজশাহীতে বড় ধরণের নাশকতার পরিকল্পনা’

রাজশাহীর চাঁপাইনবাবগঞ্জের চর আলাতুলি জঙ্গি আস্তানায় মীরপুরে গ্রেপ্তারকৃত জঙ্গি সদস্য আব্দুল্লার দেওয়া তথ্য মতে এক অভিযান চালায় র‍্যাব। অভিযান শেষে দুপুরের দিকে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি এ তথ্য জানান। এ অভিযানে মোট তিন জঙ্গি নিহত হয়েছে বলেও জানান তিনি।

র‌্যাবের মিডিয়া উইংস পরিচালক মুফতি মাহমুদ বলেন, রাজশাহী অঞ্চলে বড় ধরণের নাশকতার পরিকল্পনা ছিল জঙ্গিদের। জঙ্গি আস্তানায় অভিযান শেষ করার পর এ তথ্য জানান তিনি।
এ সময় তিনি আরও জানান, জঙ্গিদের পরিকল্পনা ছিল রাজশাহী অঞ্চলে বড় ধরণের নাশকতা করা। সেই লক্ষ্যে তারা দুর্গম চরের একটি বাড়ি ভাড়া নেয়। তারা এনজিওকর্মী হিসেবে বাড়িটি ভাড়া নিয়ে জঙ্গি আস্তানা গড়ে তোলে। চরে আগত বিদেশি পাখি নিয়ে কাজ করার কথা বলে ক্যামেরা দিয়ে তারা বিভিন্ন সময় ছবি তুলত বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।

তিনি সাংবাদিকদের জানান, জঙ্গি আস্তানা থেকে দুটি পিস্তল ও দুটি ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয়। এছাড়া বিপুল পরিমাণ শক্তিশালী বিস্ফোরক, ১২টি শক্তিশালী ডেটোনেটর, হাত গ্রেনেড ও তিনটি আইইডি নিষ্ক্রিয় করেছে র‌্যাবের বোমা ডিস্পোজাল দল। এ সময় আস্তানার ভিতরে তিনটি মৃতদেহ ছিন্নভিন্ন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। মৃতদেহগুলো উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তবে নিহতদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

এর আগে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এসেছেন র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (এডিজি) আনোয়ার লতিফ। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারযোগে র‌্যাবের এডিজি আনোয়ার লতিফ চাঁপাইনবাবগঞ্জের জঙ্গি আস্তানা এলাকায় এসে পৌছেন। এরপর তিনি হেলিকপ্টার থেকে নেমে ঘটনাস্থলে যান।


র‌্যাব রাজশাহী-৫ এর পরিচালক মুফতি মাহমুদ সাংবাদিকদের জানান, র‌্যাব সদস্যরা রাত ৩ টা থেকে ঘিরে রাখে বাড়িটি। এরপর থেকে জঙ্গিদের বারবার আত্মসমর্পণের আহ্বান জানানো হয়। কিন্তু বাড়ির ভিতর থেকে দু’দফায় বিস্ফোরণ ঘটায় জঙ্গিরা।

রাজশাহী র‌্যাব-৫-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল মাহাবুব আলম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চর আলাতুলি গ্রামের একটি বাড়ি ঘেরাও করে জঙ্গিদের আত্মসমর্পণের আহ্বান জানানো হয়। এ সময় জঙ্গিরা বাড়ির ভেতর থেকে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গ্রেনেড নিক্ষেপ ও গুলি করে। এ সময় র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। এরপর বাড়িটিতে আগুন লেগে যায়। এ ঘটনায় বাড়ি মালিক রাসিকুলসহ ৩ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। আটককৃত অপর দু’জন হলেন, রাসিকুলের স্ত্রী নাজমা ও তাঁর শ্বশুর খোরশেদ আলম।


%d bloggers like this: